কুর্নট ডুয়োপলি মডেল

ফরাসি অর্থনীতিবিদ অগাস্টিন কুর্নট (Augustin Cournot) ১৮৩৮ সালে ডুয়োপলি বাজারের সমস্যা ব্যাখ্যার জন্য একটি মডেল গড়ে তোলেন, যা কুর্নট মডেল নামে পরিচিত। দুজন প্রতিদ্বন্দ্বী বিক্রেতা একটি সমজাতীয় দ্রব্য উৎপাদন ও বিক্রয়ের ক্ষেত্রে কিভাবে সুপ্রতিষ্ঠিত ভারসাম্যে পৌছতে পারে তিনি তা ব্যাখ্যা দেন। ডুয়োপলিতে এ মডেলটির গুরুত্ব অপরিসীম।

কুর্নট মডেলঃ কুর্নট তার মডেলে দুটি ফার্মের পণ্য হিসেবে ঝরনার পানিকে বিবেচনা করেন যাদের উৎপাদন ব্যয় শূন্য। তিনি মনে করেন ‍দুটি ফার্মের প্রত্যেকেই একটি করে ঝরনার মালিক এবং ফার্ম দুটির পণ্যের চাহিদা রেখা সরল আকৃরিত। বাজারে ক্রেতার সংখ্যা অসংখ্য থাকে। বিক্রেতা এই অনুমানের ভিত্তিতে পানি বিক্রয় করে যে তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিক্রেতা পণ্যের উৎপাদন পরিবর্তন করবে না। অর্থাৎ প্রত্যেকেই স্বাধীনভাবে উৎপাদন নির্ধারণ করে মুনাফা সর্বোচ্চকরণ করতে চায়।

ডুয়োপলিতে কুর্নট মডেলটি গুরুত্বপূর্ণ। অধ্যাপক কুর্নট কতিপয় স্বতঃসিদ্ধ অনুমিতির আলোকে তার মডেল বিশ্লেষণ করেন। কিন্তু পরবর্তীতে তার তত্ত্বের বিভিন্ন দুর্বলতা নিয়ে সমালোচনা করা হলেও ডুয়োপলিতে পরবর্তীকালে যেসব মডেল গড়ে উঠে তা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে কুর্নট মডেল থেকে সহায়তা গ্রহণ করে।

স্ট্যাকেলবার্গের ডুয়োপলি মডেল

ডুয়োপলি (Duopoly) বলতে এমন এক বাজার ব্যবস্থাকে বুঝায় যেখানে বিক্রেতা মাত্র দুজন থাকে। ডুয়োপলি ব্যাখ্যায় স্ট্যাকেলবার্গ মডেলটি অন্যতম। এটি মূলত আরো পড়ুন

অলিগোপলি বাজার কাকে বলে?
অলিগোপলি বাজার কাকে বলে?

আধুনিক অর্থনীতিতে অলিগোপলির স্থান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ বাজারে পারস্পরিক নির্ভরশীল কতিপয় ফার্ম পরিলক্ষিত হয় বলে ফার্মগুলোর আচরণের মধ্যেও বৈচিত্র্য লক্ষ আরো পড়ুন

আধুনিক খাজনা তত্ত্ব

ক্লাসিক্যাল অর্থনীতিবিদ ডেভিড রিকার্ডো তার খাজনা তত্ত্ব বিশ্লেষণে ভূমিকে একটি উপাদান হিসেবে বিবেচনা করেন নি, তিনি ভূমিকে অস্থিতিস্থাপক প্রাকৃতিক দান আরো পড়ুন

নিম খাজনা কি?

অধ্যাপক মার্শাল সর্বপ্রথম অর্থনীতিতে নিম খাজনা বা উপ-খাজনা (Quasi-Rent) ধারণাটির অবতারণা করেন। জমি ও অন্যান্য প্রদত্ত উপাদান যেগুলোর যোগান সীমাবদ্ধ আরো পড়ুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।