অ্যামিন কাকে বলে? অ্যামিনের শ্রেণীবিভাগ উদাহরণসহ লিখ?

অ্যামিন কাকে বলে? অ্যামিনের শ্রেণীবিভাগ উদাহরণসহ লিখ?

অ্যামিনঃ- অ্যামোনিয়াম অনু হতে এক বা একাধিক হাইড্রোজেন পরমানু সমসংখ্যক হাইড্রোকোর্বন মূলক দ্বারা প্রতিস্থাপিত করালে যে যৌগ শ্রেণীর সৃষ্টি হয়, তাদেরকে অ্যামিন বলে। যেমন- মিথাইল অ্যামিন (CH3-NH2); ডাই মিথাইল অ্যামিন (CH3-NH-CH3).

অ্যামিনের শ্রেণীবিভাগঃ নাইট্রোজেন পরমানুতে যুক্ত অ্যালকাইল বা অ্যারাইল মূলকের সংখ্যা অনুসারে চার শ্রেণীতে ভাগ করা হয় অ্যামিন কে।

যথা:-    ১. প্রাইমারী বা ১0 অ্যামিন

            ২. সেকেন্ডারী বা ২0 অ্যামিন

            ৩. টারসিয়ারী বা ৩0 অ্যামিন

            ৪. কোয়ারটারনারী অ্যামোনিয়াম লবন।

প্রাইমারী অ্যামিনঃ- অ্যামোনিয়ার অনু হতে একটি হাইড্রোজেন পরমানু একটি হাইড্রোকার্বন মূলক দ্বারা প্রতিস্থাপিত করালে যে অ্যামিন এর সৃষ্টি হয, তাকে প্রাইমারী অ্যামিন বা ১0 অ্যামিন বলে। যেমন- মিথাইল অ্যামিন (CH3-NH2); ইথাইল অ্যামিন (CH3-CH2-NH2) ইত্যাদি।

সেকেন্ডারী অ্যামিনঃ- অ্যামোনিয়ার অনু হতে দুটি হাইড্রোজেন পরমানু দুটি হাইড্রোকার্বন মূলক দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয়ে যে অ্যামিনের সৃষ্টি হয়, তাকে সেকেন্ডারী অ্যামিন বলে। যেমন- ডাই মিথাইল অ্যামিন (CH3-NH-CH3); ইথাইল মিথাইল অ্যামিন (CH3-CH2-NH-CH3) ইত্যাদি।

টারসিয়ারী অ্যামিনঃ- অ্যামোনিয়ার অনু হতে তিনটি হাইড্রোজেন পরমানু তিনটি হাইড্রোকার্বন মূলক দ্বারা প্রতিষ্থাপিত করালে যে অ্যামিনের সৃষ্টি হয় তাকে টারসিয়ারী অ্যামিন বলে। যেমন- ট্রাইমিথাইল অ্যামিন; ইথাইল ডাই মিথাইল অ্যামিন ইত্যাদি।

কোয়ারটারনারী অ্যামোনিয়াম লবনঃ- টারসিয়ারী অ্যামিনের নাইট্রোজেন পরমাণুর নিঃসঙ্গ ইলেকট্রন যুগল দ্বারা আরও একটি অ্যালকাইল মূলকের সাথে সান্নিবেশ বন্ধন সৃষ্টি করে ফলে ধনাত্মক আধানযুক্ত টেট্রা অ্যালকাইল অ্যামোনিয়াম আয়ন উৎপন্ন হয়। আর তা থেকে উৎপন্ন যৌগকে টেট্রা অ্যালকাইল অ্যামোনিয়াম লবন বা কোয়ারটারনারী অ্যামোনিয়াম লবন বলে। যেমন- টেট্রা মিথাইল অ্যামোনিয়াম ক্লোরাইড।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।